সোমবার, ২৪ Jun ২০২৪, ০৭:১৭ পূর্বাহ্ন




লালমনিরহাটে সুপারি চুরির সন্দেহে দুই শিশুকে শারীরিক নির্যাতনের অভিযোগ

লালমনিরহাটে সুপারি চুরির সন্দেহে দুই শিশুকে শারীরিক নির্যাতনের অভিযোগ

কাওছার মাহমুদ, লালমনিরহাট প্রতিনিধি :
লালমনিরহাটে তৃতীয় শ্রেণীর দুই ছাত্রকে সুপারি চুরির সন্দেহে পাশবিকভাবে নির্যাতনের অভিযোগ ওঠেছে এক দলিল লেখকের বিরুদ্ধে।
জেলার সদর উপজেলার হারাটি ইউনিয়নের ওকড়াবাড়ির এলাকায় শুক্রবার (১৭ মে) রাতে দুই শিশু নির্যাতনের এই ঘটনা ঘটে।
তারা দুইজনেই ঐ এলাকার প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৩য় শ্রেণির ছাত্র। নির্যাতনের শিকার ওই শিশুদের বয়স ৮ থেকে ৯ বছর বলে জানা যায়। অভিযুক্ত দলিল লেখক সাগর একই এলাকার মৃত-আইয়ুব আলী ভেন্ডারের ছেলে।
এ ঘটনায় ওই নির্যাতিত শিশুদের একজনের ভাই লালমনিরহাট সদর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন। অভিযোগ প্রাপ্তির বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সদর থানার ওসি।
স্থানীয় ও অভিযোগ সূত্রে জানা যায় সুপারি চুরির সন্দেহে ওই দুই শিশুকে সুকৌশলে ডেকে নিয়ে যায় স্থানীয় দলিল লেখক সাগর। পরে তাদের হাত পা বেঁধে বেধড়ক কিল-ঘুসি ও লাঠি দিয়ে পেটায়। এতে ওই দুই শিশু অজ্ঞান হয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। পরে এলাকাবাসী শিশু দুটিকে সজ্ঞাহীন অবস্থায় উদ্ধার করে লালমনিরহাট সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন।
নির্যাতনের শিকার এক শিশু জানান, ‘আমরা সুপারি চুরি করি নাই। কিন্তু সাগর চাচা আমাদেরকে কায়দা করে তুলে নিয়ে যায়। আমি তার মাইর সহ্য করতে না পেরে তার পা ধরতে চেয়েছি’।
নির্যাতিত অপর শিশু শরিফুল বলেন, ‘আমাদের গলায় ছুরি রেখে আমরা সুপারি চুরি করেছি তা স্বীকার করতে বাধ্য করানো হয়।
শিশু আসিফের মা আছমা বেগম বলেন, ‘এই সাগর মানুষ নয়। পশুর চেয়েও অধম। সাগরের যেন সঠিক বিচার হয় এটাই কামনা আমার।’
তবে এবিষয়ে থানায় লিখিত অভিযোগ হলেও অভিযুক্ত দলিল লেখক সাগরকে এখনো গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।
লালমনিরহাট সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) ওমর ফারুক বলেন, ‘অভিযোগ পেয়েছি, তদন্ত করে প্রয়োজনীয় আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে’।

নিউজটি শেয়ার করুন







© All rights reserved © uttorersomoy.com
Design BY BinduIT.Com