সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ০৩:৩৭ পূর্বাহ্ন




কালীগঞ্জে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর সমর্থককে প্রকাশ্যে থাপ্পর উপর চেয়ারম্যান প্রার্থী, রিটার্নিং কর্মকর্তা বরাবর অভিযোগ

কালীগঞ্জে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর সমর্থককে প্রকাশ্যে থাপ্পর উপর চেয়ারম্যান প্রার্থী, রিটার্নিং কর্মকর্তা বরাবর অভিযোগ

লালমনিরহাট প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি :
লালমনিরহাটের কালীগঞ্জ উপজেলা পরিষদের নির্বাচনী প্রচারণা চালানোর সময় প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর সমর্থককে মারধর ও নারী কর্মীদের সাথে অশালীন আচরণের অভিযোগ তুলে রিটার্নিং কর্মকর্তা বরাবর লিখিত অভিযোগ করেছেন অপর প্রার্থীর বিরুদ্ধে।

১৪ মে (সোমবার) বিকেলে উপজেলার কাশীরাম গ্রামে। এ ঘটনা ঘটে
ঘটনার পরই ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার জহুরুল ইমাম এবং কালিগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ। পরবর্তীতে এ বিষয়ে রাতেই রিটার্নিং কর্মকর্তা বরাবর লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন ভুক্তভোগী চেয়ারম্যান প্রার্থী রাকিবুজ্জামান আহমেদ।
অভিযোগ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, ভোটের প্রচার-প্রচারণা শুরুর পর থেকেই ঘোড়া প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী মাহবুব জামান আহমেদ অপর প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী আনারস প্রতীকের রাকিবুজ্জামান আহমেদের সমর্থক ও কর্মীদের ফোনে ও সামনাসামনি হুমকি দিয়ে আসছে। এই ধারাবাহিকথায় আজ মঙ্গলবার বিকেলে কাশীরাম গ্রামে আনারস প্রতীকের প্রার্থী রাকিবুজ্জামান আহমেদের প্রচারণা চালাতে গেলে সমর্থকদের গতিরোধ করেন অপর প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী মাহাবুবুজ্জামান আহমেদ ও তার দুই ছেলে । এ সময় আনারস প্রতীকের অন্যতম কর্মী মেহরাবুর রহমান ওরফে কাজী আদেলকে প্রকাশ্যে থাপ্পর মারেন ঘোড়া প্রতীকের মাহবুবুজ্জামান আহমেদ। এ সময় উপস্থিত থাকা রাকিবুজ্জামানের স্ত্রী ও ফুফু সহ নারী কর্মীদের অশ্লীল ভাষায় গালমন্দ সহ হুমকি দিয়ে অশালীন আচরণ করেন মাহবুবুজ্জামান আহমেদ। এদিকে এক প্রার্থীর প্রচার কাজে সরাসরি অপর প্রার্থী কর্তৃক বাধা দেওয়ার ঘটনায় তোলপাড় অবস্থার সৃষ্টি হয় উপজেলা জুড়ে।
খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে ছুটে যান সহকারী রিটারনিং কর্মকর্তা ও কালিগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ। এ বিষয়ে জানতে চাইলে, সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা ও কালিগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার জহির ইমাম বলেন, খবর পেয়েই তিনি ঘটনাস্থলে যান এবং সেখানকার প্রত্যক্ষদর্শীদের সাথে কথা বলে ঘটনার প্রাথমিক সততা পান। ইতোমধ্যেই আনারস প্রতীকের প্রার্থী রাকিবুজ্জামান আহমেদ একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন যা তদন্তাধীন রয়েছে। একই বিষয়ে জানতে চাইলে কালিগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ ইমতিয়াজ কবির বলেন, মোবাইল ফোনের সংবাদ পেয়েই ঘটনার সাথে সাথেই ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন তিনি। প্রাথমিক তদন্তে ঘটনা সত্যতা পাওয়ার কথা বলে তিনি আরো জানান, আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন। এ বিষয়ে জানতে চাইলে ভুক্তভোগী সমর্থক মেহরাবুর রহমান ওরফে কাজী আদেল সাংবাদিকদের বলেন, রাকিবুজ্জামান আহমেদের নির্বাচনী কাজ করায় তাকে প্রকাশ্যে সকলের সামনে থাপ্পর মেরেছেন অপর প্রার্থী মাহাবুবুজ্জামান আহমেদ। এ সময় নারীকর্মীদের অকথ্য ভাষায় হুমকি মূলক গালমন্দ করেন তিনি। আনারস প্রতীকের রাকিবুজ্জামান আহমেদ বলেন, নির্বাচনের শুরু থেকেই খুব উগ্র আচরণ দেখিয়ে আসছেন অপরপ্রার্থী মাহাবুবু জামান আহমেদ। আজ কর্মীর উপর হাত তুলেছেন নিজেই, নারী কর্মীদের অশ্রাব্য ভাষায় গালি দিয়েছেন। এসব বিষয় নিয়ে জেলা রিটার্নিং অফিসার বরাবর অভিযোগ দেওয়া হয়েছে। অভিযোগের বিষয়ে অভিযুক্ত ঘোড়া প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী মাহবুব জামান আহমেদের সাথে কথা বলতে মোবাইল ফোনে একাধিকবার যোগাযোগ করে তার কোন বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

নিউজটি শেয়ার করুন







© All rights reserved © uttorersomoy.com
Design BY BinduIT.Com