সোমবার, ২৪ Jun ২০২৪, ০৬:৩৮ পূর্বাহ্ন




পেনশনের টাকার জন্য স্ত্রী-মেয়ের হাতেই প্রাণ গেল বৃদ্ধের

পেনশনের টাকার জন্য স্ত্রী-মেয়ের হাতেই প্রাণ গেল বৃদ্ধের

নিউজ ডেস্ক :
মৌলভীবাজারের কুলাউড়ায় পেনশনের টাকা ও জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে শেখ রফিকুল ইসলাম সিদ্দিকী নামে এক বৃদ্ধকে হত্যার অভিযোগ উঠেছে তার স্ত্রী ও মেয়েদের বিরুদ্ধে। শুক্রবার রাতে উপজেলার ভাটেরা ইউনিয়নের কৃষ্ণপুর (বালিধারা) গ্রামে ঘটনা ঘটে।
শনিবার সকালে এ ঘটনায় নিহত রফিকুল ইসলাম সিদ্দিকীর ভাই সিরাজুল ইসলাম সিদ্দিকী বাদী হয়ে ছয়জনকে আসামি করে একটি মামলা করেন। ওই মামলায় নিহতের স্ত্রী মিছফা আক্তার জোৎস্না, মেয়ে শারমিন আক্তার, শেখ তাজরিন আক্তার ও তার স্বামী মেহেদী হাসানকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

রফিকুল ইসলাম সিদ্দিকীর ভাই সিরাজুল ইসলাম সিদ্দিকী বলেন, আমার ছোট ভাই রফিকুল চাকরি থেকে অবসর নেয়ার পর তার পেনশনের প্রাপ্ত ৫২ লাখ টাকা নিয়ে ঝগড়া-বিবাদ হতো। ওই পেনশনের টাকা নেয়ার জন্য স্ত্রী মিছফা আক্তার ও তার মেয়েরা আমার ভাইকে প্রায়ই মারধর করতো। এ নিয়ে ইউপি সদস্যসহ বেশ কয়েকবার পারিবারিক সালিশ বৈঠকে সমস্যার সমাধান করেছি। শুক্রবার রাতেও এ সংক্রান্ত বিবাদের জন্য সালিশ বৈঠকে সমাধান হয়। পরে আমরা বাড়িতে চলে যাই। এরপর ওই রাতেই খবর পেয়ে রফিকুলের বাড়িতে গিয়ে দেখি তার লাশ ঘরের বারান্দার মেঝেতে জখম অবস্থায় পড়ে আছে। আমার ভাইকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করেছে তার স্ত্রী, মেয়ে ও মেয়ের জামাতা।

স্থানীয় ইউপি সদস্য সাইদুল ইসলাম পাখি বলেন, রফিকুল সম্পর্কে আমার মামা। আমার মামা সঙ্গে পেনশনের টাকা নিয়ে ঝগড়া করতেন মামি, মেয়ে ও মেয়ের জামাতারা। একাধিকবার বৈঠক বসে পারিবারিকভাবে বিষয়টি আমরা সমাধান করেছি। মামার শরীরে আঘাতের চিহ্ন দেখে ধারণা করছি এটি পরিকল্পিত হত্যা।

কুলাউড়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) রতন চন্দ্র দেবনাথ জানান, নিহতের শরীরের বিভিন্ন অংশে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। এ ঘটনায় গ্রেফতার চার আসামিকে শনিবার বিকেলে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে। তবে ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পেলে মৃত্যুর কারণ জানা যাবে।

নিউজটি শেয়ার করুন







© All rights reserved © uttorersomoy.com
Design BY BinduIT.Com