রবিবার, ০৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৭:২৯ অপরাহ্ন




তিনদিন নিজের ঘরে পড়েছিল ব্যবসায়ীর মরদেহ

তিনদিন নিজের ঘরে পড়েছিল ব্যবসায়ীর মরদেহ

সৈয়দপুর (নীলফামারী) প্রতিনিধি :
নীলফামারীর সৈয়দপুরে বাসা থেকে বখতিয়ার হোসেন (৪০) নামের একব্যক্তির অর্ধগলিত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শুক্রবার (২৫ নভেম্বর) দুপুরে শহরের পুরাতন বাবুপাড়া এলাকা থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।

বখতিয়ার হোসেন ওই মহল্লার দারুল উলুম মাদরাসা সড়কের মৃত সালামত আলীর ছেলে। তিনি পেশায় একজন লন্ড্রি ব্যবসায়ী।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, ওই বাড়িতে বখতিয়ার হোসেনের সঙ্গে মানসিক ভারসাম্যহীন বড় দুই বোন থাকতেন। তিনদিন ধরে দোকান বন্ধ থাকায় স্থানীয় এক বাসিন্দা বাড়িতে গেলে দুর্গন্ধ পান। পরে বাসার একটি কক্ষের বিছানায় বখতিয়ারের মরদেহ দেখতে পান তিনি।

বখতিয়ারের বড় ভাই এখলাক মিয়া শহরের মুন্সিপাড়ায় সস্ত্রীক ভাড়া বাসায় থাকেন। তিনি বলেন, ছোট ভাই দীর্ঘদিন ধরে অসুস্থ ছিলেন। মানসিক ভারসাম্যহীন হওয়ায় দুই বোন মৃতের সংবাদটি কাউকে জানাতে পারেননি।

ভারসাম্যহীন বোন মাহাতারার উদ্ধৃতি দিয়ে তিনি বলেন, বুধবার কোনো এক সময় তিনি মারা গেছেন।

সৈয়দপুর পৌরসভার ওয়ার্ড কাউন্সিলর বেলাল হোসেন বলেন, পুরো পরিবারটি মানসিক রোগে আক্রান্ত। তারা কারও সঙ্গে মেলামেশা করেন না। অনাহারে থাকলেও কারও কাছ থেকে সাহায্য নেন না। বখতিয়ারের দাফনকাজ তার দুই বোন নিজেরাই বাসার পেছনে করতে চান।

সৈয়দপুর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাইফুল ইসলাম বলেন, পরিবারের সদস্যরা মানসিক ভারসাম্যহীন বলে জেনেছি। পরিবারের কোনো অভিযোগ না থাকায় ময়নাতদন্ত ছাড়াই মরদেহ দাফনের অনুমতি দেওয়া হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন







© All rights reserved © uttorersomoy.com
Design BY BinduIT.Com