মঙ্গলবার, ০৪ অক্টোবর ২০২২, ০৯:৫৮ পূর্বাহ্ন




সন্তানদের গলায় ছুরি ধরে মাকে পালাক্রমে ধর্ষণ, ধর্ষক আটক

সন্তানদের গলায় ছুরি ধরে মাকে পালাক্রমে ধর্ষণ, ধর্ষক আটক

নিউজ ডেস্ক :
নরসিংদীর রায়পুরায় সন্তানদের গলায় ছুরি ধরে মাকে পালাক্রমে ধর্ষণ মামলার প্রধান আসামি শরীফ হাসানকে আটক করেছে র‌্যাব। এ সময় তার কাছ থেকে ২টি মোবাইল ও ২টি সিমকার্ড উদ্ধার করা হয়েছে।
সোমবার ভোরে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার আখাউড়া উপজেলার নয়াদিল বাসুদেবপুর থেকে তাকে আটক করা হয়

আটককৃত শরিফ হাসান রায়পুরা উপজেলার মির্জাপুর গ্রামের রাশেদ মিয়ার ছেলে। গ্রেফতারকালে

র‌্যাব-১১, সিপিএসসি, নরসিংদীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ক্যাম্প কমান্ডার খন্দকার মো. শামীম হোসেন জানান, প্রবাসীর স্ত্রী দুই সন্তান নিয়ে নরসিংদীর রায়পুরার মির্জাপুর এলাকায় স্বামীর বাড়িতে বসবাস করেন। তার স্বামী এক বছর আগে প্রবাসে যান। গত ২১ আগস্ট রাতে ৬ বছর ও আড়াই বছর বয়সী দুই শিশু ছেলেকে নিয়ে নিজ ঘরে ঘুমাচ্ছিলেন প্রবাসীর স্ত্রী। রাত ২টার দিকে আগে থেকে ওত পেতে থাকা শরীফ হাসান ও তার সহযোগী শাহপরান দরজা ভেঙে প্রবাসীর স্ত্রীর ঘরে প্রবেশ করে। এ সময় কিছু বুঝে উঠার আগেই হাত, পা ও মুখ গামছা দিয়ে বেঁধে সন্তানদের গলায় ছুরি ধরে জিম্মি করে।

পরে সন্তানদের সামনে মাকে (প্রবাসীর স্ত্রী) পালাক্রমে ধর্ষণ করে দুই যুবক। ধর্ষণে বাধা দিলে প্রবাসীর স্ত্রীর গলায় গামছা পেঁচিয়ে হত্যার চেষ্টা এবং হাতে একাধিকবার ছুরিকাঘাত করা হয়। ঘটনা কাউকে জানানো হলে তাকে এবং ছেলেদের হত্যার হুমকি দিয়ে ধর্ষকরা চলে যায়।

র‌্যাব কর্মকর্তা আরো জানান, অভিযুক্তদের গ্রেফতারের দাবিতে এরই মধ্যে মানববন্ধন করে এলাকাবাসী ও স্থানীয় স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘রায়পুরা পূর্বাঞ্চল স্বেচ্ছাসেবী ফোরাম’। তারই প্রেক্ষিতে আসামিদের আটকে গোয়েন্দা তৎপরতা শুরু করে র‌্যাব-১১। পরবর্তীতে গোয়েন্দা সূত্রে প্রধান আসামি ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার আখাউড়ার মোগড়া ইউনিয়নের নয়াদিল (বাসুদেবপুর) গ্রামের মন্নাফ মিয়ার বাড়িতে ছদ্মবেশে আত্মগোপন করে আছে বলে জানতে পারেন।

আসামির অবস্থান নিশ্চিত হয়ে সোমবার (২৯ আগস্ট) ভোর সাড়ে ৫টায় অভিযান চালিয়ে শরীফকে আটক করা হয়। পরে তাকে রায়পুরা থানার মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তার কাছে হস্তান্তর করা হয় বলে জানান ঐ র‌্যাব কর্মকর্তা।

নিউজটি শেয়ার করুন







© All rights reserved © uttorersomoy.com
Design BY BinduIT.Com