মঙ্গলবার, ০৪ অক্টোবর ২০২২, ১০:৪১ পূর্বাহ্ন




ফুলবাড়ীতে প্রতিমা ভাংচুর করে মন্দিরে আগুন ধরিয়ে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা-আতংকিত স্থানীয় হিন্দুরা

ফুলবাড়ীতে প্রতিমা ভাংচুর করে মন্দিরে আগুন ধরিয়ে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা-আতংকিত স্থানীয় হিন্দুরা

মোঃবুলবুল ইসলাম, কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি :
কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী উপজেলায় শিব ও মনসা প্রতিমা ভাংচুর করে মন্দিরে আগুন ধরিয়ে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। গত সোমবার (৮ আগস্ট) দিবাগত রাত আনুমানিক আড়াইটার দিকে উপজেলার নাওডাঙ্গা ইউনিয়নের নাওডাঙ্গা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। প্রতিমা ভাংচুর ও মন্দিরে আগুন ধরিয়ে দেওয়ার ঘটনায় আতংকিত হয়ে পড়েছে স্থানীয় হিন্দু জনগোষ্ঠির লোকজন। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে তদন্ত শুরু করেছে বলে নিশ্চিত করেছেন ফুলবাড়ী থানার অফিসার্স ইনচার্জ (ওসি) ফজলুর রহমান।

পুলিশ ও স্থানীয় লোকজন জানান, নাওডাঙ্গা গ্রামের রতিকান্ত রায়ের বাড়ির উঠানের মন্দিরে শিব ও মনসা মূর্তি রয়েছে। রাতে একদল অজ্ঞাত দুর্বৃত্তরা এ মন্দিরের প্রতিমা ভাংচুর করে মন্দিরে আগুন ধরিয়ে দেয়। এতে মন্দিরের ৪০ শতাংশ আগুনে পুড়ে গেছে।

রতিকান্ত চন্দ্র রায় জানান, তার প্রতিবেশি গোলজার রহমান, মাইদুল ইসলাম ও বাদল চন্দ্র রায় রাতে তাকে ঘুম থেকে ডেকে তুলে মন্দিরে আগুন জ্বলে উঠার ঘটনা জানান। তিনি স্থানীয় লোকজনের সহযোগিতা নিয়ে মন্দিরের আগুন নেভান। ‘কারা প্রতিমা ভাংচুর ও মন্দিরে আগুন ধরিয়ে দিয়েছে সেটা দেখিনি।

তিনি আরো বলেন, ‘আমার বাবা ও দাদা এই মন্দিরে পূজা করতেন। আমার বাবার মৃত্যুর পর আমিও এই মন্দিরে পুজার্চনা করে আসছি।

প্রতিবেশি গোলজার রহমান জানান, রাত আড়াইটার দিকে মন্দিরে আগুন জ্বলতে দেখতে রতিকান্তকে ঘুম থেকে ডেকে তোলেন। ‘আমরা সবাই মিলে মন্দিরের আগুন নেভাই।

ফুলবাড়ী উপজেলার পুজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি কাত্তিক চন্দ্র রায় বলেন, প্রতিমা ভাংচুর করে মন্দিরে আগুন ধরিয়ে দেওয়ার ঘটনায় তারা আতংকিত হয়েছেন। বিষয়টি উপজেলা প্রশাসন ও পুলিশকে অবহিত করা হয়েছে। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

নাওডাঙ্গা ইউনিয়নের হিন্দু বৌদ্ধ খৃষ্টান ঐক্য পরিষদের সাধারন সম্পাদক রতন রায় বলেন, প্রতিমা ভাংচুর ও মন্দিরের আগুন ধরিয়ে দেওয়ার ঘটনা তাদের জন্য হুমকি। দুর্বৃত্তরা হিন্দুদের মাঝে আতংক সৃষ্টি করতে এ ঘটনা ঘটাতে পারে। পুলিশ বিষয়টি তদন্ত করছে। সুষ্ঠ্য বিচার না পেলে প্রয়োজনে আন্দোলন করা হবে।

ফুলবাড়ী থানার অফিসার (ওসি) ফজলুর রহমান বলেন, ঘটনাটি শুনে তাৎক্ষনিক ঘটনাস্থলে এসেছি। ঘটনাটি গুরুত্ব সহকারে তদন্ত করে দুর্বৃত্তদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ফুলবাড়ী উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) সুমন দাস বলেন, ঘটনাটি জেনে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন







© All rights reserved © uttorersomoy.com
Design BY BinduIT.Com