বুধবার, ১০ অগাস্ট ২০২২, ১০:৩১ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম
ফুলবাড়ী ফিটনেস পয়েন্ট ব্যায়ামাগার উদ্বোধন মাত্র দেড় ঘণ্টার ব্যবধানে দুই ছাত্র-ছাত্রীর অপমৃত্যু, চাঞ্চল্যের সৃষ্টি ফুলবাড়ীতে প্রতিমা ভাংচুর করে মন্দিরে আগুন ধরিয়ে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা-আতংকিত স্থানীয় হিন্দুরা কুড়িগ্রামে জ্বালানি তেল ও সারের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে ইসলামী আন্দোলনের বিক্ষোভ বাসে ধর্ষণ: ৪ জনের স্বীকারোক্তি, ৬ জন রিমান্ডে ট্রেনের ভাড়া বাড়ানোর সিদ্ধান্ত এখনো হয়নি: রেলমন্ত্রী মিশরী তরুণী এখন বীরগঞ্জের পুত্রবধূ শাক দিয়ে মাছ ঢাকতেই যুবলীগ সভাপতি সুমনের বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন কড়া নিরাপত্তায় তাজিয়া মিছিলে মানুষের ঢল পাঁচ বিশিষ্ট নারীকে বঙ্গমাতা পদক দিলেন প্রধানমন্ত্রী




নিত্যপণ্যের মূল্য স্থিতিশীল হতে শুরু করেছে

নিত্যপণ্যের মূল্য স্থিতিশীল হতে শুরু করেছে

নিউজ ডেস্ক :
সরকারের গৃহীত পদক্ষেপের ফলে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের মূল্য স্থিতিশীল হতে শুরু করেছে বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বুধবার বুধবার একাদশ জাতীয় সংসদের অষ্টাদশ অধিবেশনে জাতীয় পার্টির সৈয়দ আবু হোসেনের প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী বলেন, সরকার অর্থনীতির চাকা সচল রেখে দ্রব্যমূল্যের দাম সহনীয় রাখার চেষ্টা করছে। দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে সরকারের নানা পদক্ষেপের কথা তুলে ধরে তিনি বলেন, সরকারের গৃহীত পদক্ষেপের ফলে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের মূল্য স্থিতিশীল হতে শুরু করেছে।

সরকারি দলের নুর উদ্দিন চৌধুরী নয়নের প্রশ্নের জবাবে সরকারপ্রধান বলেন, বাংলাদেশ বিমানবাহিনী নিজস্ব প্রযুক্তিতে স্বল্প পরিসরে প্রাথমিক প্রশিক্ষণ বিমান ও আনম্যানড এরিয়াল ভেহিকেল (ইউএভি) তৈরির কার্যক্রম চলমান রয়েছে। কৌশলগত দিকনির্দেশনা অনুযায়ী ধীরে ধীরে এই প্রচেষ্টা সফলতার পথ ধরে একদিন বাংলাদেশ উচ্চ প্রযুক্তির যুদ্ধবিমান, হেলিকপ্টার ও পাইলটবিহীন বিমান তৈরি করতে সক্ষম হবে।

প্রধানমন্ত্রী তার বক্তৃতায় বলেন, দেশি ও বিদেশি নানা ষড়যন্ত্রের ফলে আমাদের সেতু নির্মাণ দুই বছর বিলম্বিত হয়েছে, কিন্তু আমরা হতোদ্যম হইনি। শেষ পর্যন্ত অন্ধকার ভেদ করে আমরা আলোর মুখ দেখেছি। দেশি ও বিদেশি সব ষড়যন্ত্র এবং বাধা-বিপত্তি পেরিয়ে পদ্মা সেতুর স্বপ্ন আজ বাস্তবে রূপ পেয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, এ সেতুর (পদ্মা সেতু) সঙ্গে জড়িয়ে আছে আমাদের আবেগ, আমাদের সৃজনশীলতা, আমাদের সাহসিকতা, সহনশীলতা এবং আমাদের প্রত্যয়। আমরা এ সেতু করবোই, সেই জেদ ছিল। শেষ পর্যন্ত অন্ধকার ভেদ করে আমরা আলোর মুখ দেখেছি। পদ্মার বুকে জ্বলে উঠেছে লাল, নীল, সবুজ, সোনালি আলোর ঝলকানি। ৪২টি স্তম্ভ যেন স্পর্ধিত বাংলাদেশের প্রতিচ্ছবি।

সরকারপ্রধান বলেন, করোনাভাইরাস আমরা সফলভাবে মোকাবিলা করতে পেরেছি। আমরা সবাইকে টিকা দিতে পেরেছি। ডব্লিউএইচওর নির্দেশনা অনুযায়ী আমরা শতভাগ টিকা দিতে পেরেছি। নতুনভাবে দেখা দিয়েছে। সবাইকে বলবো, স্বাস্থ্য সুরক্ষা মেনে চলতে।

এ সময় রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ মড়ার ওপর খাড়ার ঘা আমাদের জন্য বলেও মন্তব্য করেন সংসদ নেতা।

তিনি বলেন, তিনটি গৌরবময় অধ্যায় আমাদের উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণের জন্য একটা মাইলফলক। আমরা আমাদের দেশের মানুষের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাই। তারা বার বার ভোট দিয়ে আমাকে নির্বাচিত করেছে। দীর্ঘ সময় ক্ষমতায় থাকার ফলে বাংলাদেশের মানুষের জন্য এই গৌরবটা আমরা বয়ে আনতে পেরেছি।

এ সময় বিগত ১৩ বছরের সরকারের বিভিন্ন উন্নয়নমূলক পদক্ষেপ তুলে ধরেন সরকার প্রধান।

নিউজটি শেয়ার করুন







© All rights reserved © uttorersomoy.com
Design BY BinduIT.Com