বুধবার, ১০ অগাস্ট ২০২২, ১০:২৯ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম
ফুলবাড়ী ফিটনেস পয়েন্ট ব্যায়ামাগার উদ্বোধন মাত্র দেড় ঘণ্টার ব্যবধানে দুই ছাত্র-ছাত্রীর অপমৃত্যু, চাঞ্চল্যের সৃষ্টি ফুলবাড়ীতে প্রতিমা ভাংচুর করে মন্দিরে আগুন ধরিয়ে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা-আতংকিত স্থানীয় হিন্দুরা কুড়িগ্রামে জ্বালানি তেল ও সারের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে ইসলামী আন্দোলনের বিক্ষোভ বাসে ধর্ষণ: ৪ জনের স্বীকারোক্তি, ৬ জন রিমান্ডে ট্রেনের ভাড়া বাড়ানোর সিদ্ধান্ত এখনো হয়নি: রেলমন্ত্রী মিশরী তরুণী এখন বীরগঞ্জের পুত্রবধূ শাক দিয়ে মাছ ঢাকতেই যুবলীগ সভাপতি সুমনের বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন কড়া নিরাপত্তায় তাজিয়া মিছিলে মানুষের ঢল পাঁচ বিশিষ্ট নারীকে বঙ্গমাতা পদক দিলেন প্রধানমন্ত্রী




জাতীয় পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ কারিগরি প্রতিষ্ঠান রংপুর টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজ

জাতীয় পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ কারিগরি প্রতিষ্ঠান রংপুর টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজ

স্টাফ রিপোর্টার :
জাতীয় পর্যায়ে (কারিগরি) শ্রেষ্ঠ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান হিসেবে শ্রেষ্ঠত্ব অর্জন করেছে রংপুর টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজ। সম্প্রতি জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহ-২০২২ উপলক্ষে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইন্সটিটিউটে আয়োজিত অনুষ্ঠানে ভার্চুয়ালি সংযুক্ত হয়ে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি এ পুরস্কার প্রদান করেছেন। অনুষ্ঠানে সরাসরি শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের উপমন্ত্রী মহিবুল ইসলাম চৌধুরীর কাছ থেকে পুরস্কার হিসেবে সনদ ও ক্রেস্ট গ্রহণ করেন রংপুর টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ ইঞ্জিনিয়ার জমিদার রহমান।
জাতীয় পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান (কারিগরি) হিসেবে এমন সাফল্য অর্জনের জন্য শিক্ষার্থী, শিক্ষক ও অভিভাবকদের প্রতি প্রতিষ্ঠানটির প্রধান ইঞ্জিনিয়ার জমিদার রহমান কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন। আর শিক্ষক, শিক্ষার্থীসহ অভিভাবকরা মনে করছেন, অধ্যক্ষ হিসেবে ইঞ্জিনিয়ার জমিদার রহমান যোগদানের পর থেকে প্রতিষ্ঠানের উন্নয়নে কাজ করে গেছেন বলেই এ স্বীকৃতি মিলেছে।
খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ইঞ্জিনিয়ার জমিদার রহমান ২০১৮, ২০১৯ ও ২০২২ সালে বিভাগীয় পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ প্রতিষ্ঠান প্রধান (কারিগরি) হিসেবে এবং ২০১৭, ২০১৮ ও ২০১৯ সালে বিভাগীয় পর্যায় শ্রেষ্ঠ প্রতিষ্ঠান হিসেবে শ্রেষ্ঠত্ব অর্জন করেছেন। কারিগরি প্রতিষ্ঠান এবং প্রতিষ্ঠানের প্রধান হিসেবে তিনি তিনবার জাতীয় পর্যায়ে পুরস্কার গ্রহণ করে হ্যাট্রিকের সাফল্য গড়েছন। কর্ম দক্ষতার কারণে ইঞ্জিনিয়ার জমিদার রহমান ২০০১ সালে রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে কম্পিউটার সায়েন্স ও ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগে সহকারী অধ্যাপক (উন্নয়ন) হিসেবে নিয়োগ পেয়েছিলেন। শিক্ষা জীবনে তিনি বিএসসি ইঞ্জিনিয়ারিং এ অনার্স মার্কসহ ডাবল স্ট্যান্ড করেন।
২০০৪ সালে পঞ্চগড় জেলার টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজে অধ্যক্ষ হিসেবে চাকরিতে যোগদান করেন। সেখান থেকে এক বছর পর ২০০৫ সালে কুড়িগ্রাম টেকনিক্যাল স্কুল ও কলেজে অধ্যক্ষ হিসেবে বদলি হন। তার দক্ষ নেতৃত্বে ২০১৫ সালে কারিগরি পর্যায়ে সেরা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান হিসেবে সুনাম অর্জন করে কুড়িগ্রাম টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজ। ২০১৮ সালে তিনি পাবনা সরকারি টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজে বদলি হয়ে যান। সেখানেও তিনি মেধা, দক্ষতা ও বিচক্ষণতার সাথে প্রতিষ্ঠান পরিচালনা করে সবার দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।
পরবর্তীতে তিনি নিজ জেলায় রংপুর টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষের দায়িত্ব নিয়ে তথ্যপ্রযুক্তির সমন্বয় ও অত্যাধুনিক চিন্তা চেতনাকে কাজে লাগিয়ে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানটিকে ঢেলে সাজানোর চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। তার যোগদানের অল্প সময়ের মধ্যে এ প্রতিষ্ঠানটি সবার আলোচনায় চলে আসে। বর্তমানে তার প্রচেষ্টায় প্রতিষ্ঠানটিতে ডিজিটাল সার্ভে, ৫০ এমবিপিএস, বাল্ক মেসেজিং সিস্টেম চালু করা হয়েছে ও মাস্টার প্লান তৈরির কাজ প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।
ইঞ্জিনিয়ার জমিদার রহমানের জন্ম রংপুরের গঙ্গাচড়া উপজেলার গজঘণ্টা ইউনিয়নের উমরগ্রামে। ব্যক্তি জীবনে তিনি তিন সন্তানের জনক। তার এক ছেলে আমেরিকার ভার্জিনিয়া টেক ইউনিভার্সিটিতে কম্পিউটার সায়েন্স ও ইঞ্জিনিয়ারিং এ পিএইচডিতে অধ্যয়নরত। অন্য ছেলে ৩৮তম বিসিএস ক্যাডারে নিয়োগ পেয়ে পিডব্লিউডিতে সহকারী প্রকৌশলী হিসেবে কর্মরত। ছোট মেয়ে রংপুর সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে দশম শ্রেণিতে অধ্যয়নরত।
ইঞ্জিনিয়ার জমিদার রহমান সফল অধ্যক্ষ হিসেবে বিভিন্ন সামাজিক, মানবাধিকার ও আন্তর্জাতিক সংগঠন থেকে একাধিক সম্মাননা ও পুরস্কার পেয়েছেন। এর মধ্যে বেগম রোকেয়া সাখাওয়াত গোল্ডেন এ্যাওয়ার্ড, মাদার তেরেসা গোল্ডেন এ্যাওয়ার্ড, বিচারপতি এস এম মোরশেদ স্মৃতি গোল্ডেন মেডেল, হিউম্যান রাইটস পিস এ্যাওয়ার্ড, আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস সম্মাননা, স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী স্মৃতি এ্যাওয়ার্ড ও মুজিববর্ষ সম্মাননা উল্লেখযোগ্য।

নিউজটি শেয়ার করুন







© All rights reserved © uttorersomoy.com
Design BY BinduIT.Com