রবিবার, ০৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৮:৩০ অপরাহ্ন




স্ত্রীর গোপনাঙ্গ কাটতে গিয়ে নিজেই হারালেন পুরুষাঙ্গ

স্ত্রীর গোপনাঙ্গ কাটতে গিয়ে নিজেই হারালেন পুরুষাঙ্গ

নিউজ ডেস্ক :
গাজীপুরের টঙ্গীতে স্বামীর পুরুষাঙ্গ কেটে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে স্ত্রীর বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত সাথী বেগমকে আটক করেছে পুলিশ।
সোমবার রাতে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন টঙ্গী পূর্ব থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাভেদ মাসুদ। এর আগে রোববার রাতে এ ঘটনা ঘটে।

অভিযুক্ত ৩৪ বছর বয়সী সাথী রাজশাহী জেলার গোদাগাড়ী উপজেলার পাকড়ি গ্রামের ইনসান আলীর মেয়ে। ভুক্তভোগী ৩৭ বছর বয়সী মনির হোসেন লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার বুদাগাজী বাড়ি গ্রামের শাহ আলম মিয়ার ছেলে। তবে তারা টঙ্গীতে ভাড়া বাসায় থাকতেন।

জানা গেছে, বিয়ের পর থেকেই মনিরের সঙ্গে সাথীর ঝগড়া লেগে থাকতো। ২৬ জুন রাতে দুজনের মধ্যে ঝগড়া শুরু হয়। একপর্যায়ে কাপড় সেলাই কাজে ব্যবহৃত কেঁচি দিয়ে মনিরের পুরুষাঙ্গে আঘাত করেন সাথী। এতে পুরুষাঙ্গ কেটে নিচে পড়ে যায়। পরে স্থানীয়রা মনিরকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে।

অভিযুক্ত সাথী বলেন, পরকীয়া সন্দেহে আমাদের প্রায়ই ঝগড়া হতো। এ নিয়ে ঘটনার দিন ঝগড়ার একপর্যায়ে আমার গোপনাঙ্গ কাটার চেষ্টা চালান মনির। এতে রেগে গিয়ে স্বামীর পুরুষাঙ্গ কেটে ফেলি।

স্থানীয়রা জানায়, স্বামী-স্ত্রী দুজন দুজনার বিরুদ্ধে পরকীয়ার অভিযোগ করছিল। তবে পরকীয়ার অভিযোগ অস্বীকার করছিলেন স্বামী মনির। এ নিয়ে প্রায়ই কলহে জড়াতো এ দম্পতি। স্ত্রী সন্দেহ করতেন স্বামীকে আর স্বামী সন্দেহ করতেন স্ত্রীকে।

টঙ্গী পূর্ব থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাভেদ মাসুদ বলেন, এ ঘটনার পর অভিযুক্ত সাথীকে আটক করা হয়েছে। একই সঙ্গে মামলা করা হয়েছে। পরে মামলায় সাথীকে গ্রেফতার দেখানো হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন







© All rights reserved © uttorersomoy.com
Design BY BinduIT.Com