বৃহস্পতিবার, ৩০ Jun ২০২২, ০৮:৩৫ অপরাহ্ন




ঠাকুরগাঁওয়ে ছাত্রী ধর্ষণ মামলায় কারাগারে সেই শিক্ষক

ঠাকুরগাঁওয়ে ছাত্রী ধর্ষণ মামলায় কারাগারে সেই শিক্ষক

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি :
ঠাকুরগাঁওয়ের রাণীশংকৈলে ১০ম শ্রেণির স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের মামলায় গ্রেপ্তার শিক্ষক তৌহিদুল ইসলামের জামিন নামঞ্জুর করেছেন আদালত।

সোমবার দুপুরে আদালতে হাজির হয়ে জামিন আবেদন করেন তৌহিদুল। জমিন নামঞ্জুর করে তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন রাণীশংকৈল চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক এস রমেশ কুমার ডাগা।

আটক তৌহিদুল রাণীশংকৈল উপজেলার সহোদর গ্রামের নূর ইসলামের ছেলে এবং রাণীশংকৈলে পাইলট হাইস্কুলের শিক্ষক। তিনি নিজ প্রতিষ্ঠানের এক দশম শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণে অভিযুক্ত।

এর আগে ৫ মার্চ শিক্ষক তৌহিদুলকে আসামি করে ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীর বাবা রাণীশংকৈল থানায় একটি ধর্ষণ মামলা করেন। ওইদিন তৌহিদের বিচারের দাবিতে স্কুলের ছাত্র-ছাত্রীরা পৌর শহরে মানববন্ধন করে। সেই সাথে ইউএনও এবং স্কুল কর্তৃপক্ষের কাছে স্মারকলিপি দেয়া হয়। এরপর আরো চার দফা আন্দোলন করে শিক্ষার্থী ও অভিভাবক মহল। সর্বশেষ ১৩ মার্চ তৌহিদুলকে গ্রেপ্তারের দাবিতে সড়ক অবরোধ করে শিক্ষার্থীরা।

উল্লেখ্য যে, তৌহিদুল ইসলাম পৌর শহরের ভান্ডারা মহল্লার ১০ম শ্রেণিতে পড়ুয়া এক ছাত্রীর সঙ্গে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলেন। ঘটনা জানাজানি হলে ওই শিক্ষার্থীর বাবা তৌহিদুলের কাছে বিয়ের প্রস্তাব দেন। তৌহিদুল ১৫ লাখ টাকা যৌতুকের শর্তে বিয়েতে রাজি হন। কিন্তু ছাত্রীর বাবা এত টাকা দিতে অপারগতা প্রকাশ করেন। এ ঘটনায় ক্ষুব্ধ লোকজন গত ৩ মার্চ ওই শিক্ষার্থীকে তৌহিদুলের বাড়িতে রেখে আসে। ওই শিক্ষার্থী বিযের দাবিতে ওই বাড়িতে অবস্থান নিলে তৌহিদুল বাড়ি থেকে পালিয়ে গিয়ে পরদিন ৪ মার্চ তড়িঘড়ি করে অন্যত্র বিয়ে করেন।

বৃহস্পতিবার থেকে ওই শিক্ষার্থী বিয়ের দাবিতে অভিযুক্ত শিক্ষকের বাড়িতে অনশন শুরু করেন।

নিউজটি শেয়ার করুন







© All rights reserved © uttorersomoy.com
Design BY BinduIT.Com