শুক্রবার, ২১ জানুয়ারী ২০২২, ০১:৫৭ পূর্বাহ্ন




মেয়ে সপ্তমে, অন্তঃসত্ত্বা হতেই ধরা ১০ম শ্রেণির ‘প্রেমিক ছাত্র’

মেয়ে সপ্তমে, অন্তঃসত্ত্বা হতেই ধরা ১০ম শ্রেণির ‘প্রেমিক ছাত্র’

নিউজ ডেস্ক :
একই স্কুলে পড়ালেখার সুবাদে ভালো লাগা। ধীরে ধীরে গড়ে ওঠে প্রেম। আর প্রেম থেকেই বিয়ের আশ্বাস। বিয়ের প্রলোভনে হয় মেলামেশাও। সপ্তম শ্রেণির ছাত্রীটিকে স্কুলের ছাদে নিয়ে একাধিকবার ধর্ষণ করে দশম শ্রেণির ছাত্র। তবে পাঁচ মাস পর অন্তঃসত্ত্বা হতেই বিষয়টি সবার চোখে ধরা পড়ে। ধরা পড়ে প্রেমিকও।
ঘটনাটি টাঙ্গাইলের গোপালপুরের। এ ঘটনায় ১১ জানুয়ারি রাতে গোপালপুর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেন ভুক্তভোগী মেয়ের বাবা। এরপর প্রেমিক রাকিব হাসানকে গ্রেফতার করে কারাগারে পাঠায় পুলিশ।

অভিযুক্ত রাকিব গোপালপুর পৌর শহরের হাটবৈরান মধ্যপাড়ার জয়নাল আবেদীনের ছেলে ও পৌর এলাকার খন্দকার আসাদুজ্জামান একাডেমির দশম শ্রেণির ছাত্র।

পুলিশ জানায়, ওই ছাত্রীর সঙ্গে প্রথমে সম্পর্ক গড়ে তোলে রাকিব। পরে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে পাঁচ মাস আগে স্কুলের ছাদে নিয়ে একাধিকবার ধর্ষণ করে। ভয়ে ওই ছাত্রী প্রথমে বিষয়টি কাউকে বলেনি। অন্তঃসত্ত্বা হলে বিষয়টি পরিবারকে জানায় মেয়েটি। পরে মেয়ের বাবা গোপালপুর থানায় মামলা করেন। এরপর রাকিবকে গ্রেফতার করে বৃহস্পতিবার দুপুরে অভিযুক্ত রাকিবকে আদালতে তোলা হয়।

এ বিষয়ে গোপালপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোশারফ হোসেন জানান, মামলার পর বুধবার একমাত্র আসামি রাকিবকে গ্রেফতার করা হয়। বৃহস্পতিবার আদালতে তোলা হলে তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন বিচারক। এরই মধ্যে ভুক্তভোগী মেয়ের ডাক্তারি পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন







© All rights reserved © uttorersomoy.com
Design BY BinduIT.Com