শুক্রবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৩:৩৭ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম
গোবিন্দগঞ্জে করতোয়া নদীর ভাঙন থেকে ফুলহার গ্রাম রক্ষায় বাঁধ সংস্কারের দাবী বীরগঞ্জে দুস্থ মেধাবী শিক্ষার্থী মাঝে ল্যাপটপ বিতরণ কুড়িগ্রামে ‘এসো মুক্তিযুদ্ধের গল্প শুনি’ শীর্ষক অনুষ্ঠান আটোয়ারীতে গ্রাম পুলিশদের মাঝে বাই সাইকেল বিতরণ কোনো শিক্ষার্থীর বিন্দুমাত্র করোনার উপসর্গ থাকলে জানাতে হবে: শিক্ষামন্ত্রী দৈনিক করতোয়া পত্রিকা পাঠকের হৃদয় জয় করেছে : রসিক মেয়র সৃজিতের সঙ্গে প্রেমের গুঞ্জন, মুখ খুললেন অভিনেত্রী ভ্যাকসিনকে বৈশ্বিক জনসম্পদ ঘোষণার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর ফুলবাড়ীতে কৃষিকদের বিনামূল্যে বীজ ও সার বিতরণ উলিপুরে কৃষক-প্রিয় হয়ে উঠেছে কেঁচো কম্পোষ্ট সার




ফুলবাড়ীতে তীব্র তাপদাহে জনজীবন বিপর্যস্ত

ফুলবাড়ীতে তীব্র তাপদাহে জনজীবন বিপর্যস্ত

ফুলবাড়ী (দিনাজপুর) প্রতিনিধি :
শ্রাবন পার হয়ে ভাদ্র শেষের দিকে হলেও এখানো বৃষ্টির দেখা নেই দিনাজপুর জেলার ফুলবাড়ীতে। উপজেলার সর্বত্র বিরাজ করছে কাঠফাটা রোদ আর ভ্যাপসা গরম। ফলে এখানকার প্রাণিকুলসহ জনজীবন বিপর্যস্থ হয়ে পড়েছে।
স্থানীয় আবহাওয়া অফিস সূত্রে জানা গেছে, এই উপজেলায় প্রতিদিন ৩৪ থেকে ৩৬ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে তাপমাত্রা ওঠানামা করছে।
এদিকে তীব্র গরমের সাথে পালস্না দিয়ে বাড়ছে বিদ্যুতের লোডশেডিং। মানুষ বৈদ্যুতিক পাখার সাহায্যে ঠান্ডা হওয়ার চেষ্টা করলেও লোডশেডিংয়ের কারণে তা পারছেন না। ফলে দিন-রাতের ভ্যাপসা গরমে নাজেহাল হচ্ছেন তারা। তীব্র রোদ-গরমে দিনমজুরদের পক্ষে মাঠ-ঘাটে কাজ করা কঠিন হয়ে পড়েছে। ভিক্ষুকরাও ক্লান্ত হয়ে পড়েছে।
চকশাহাবাজপুরের ভিক্ষুক রমজান আলী(৭০) বলেন, তীব্র রোদ আর গরমের কারণে গ্রামে বের হতে পারছিনা ফলে আয় রোজগার কমে গেছে পরিবার নিয়ে কঠিন অসুবিধায় পড়েছি।
একই এলাকার মিছিরন বিবি (৫৫) জানান, অন্যের বাড়িতে কাজ করে পেটের খাবার যোগাই। কিন্তু কয়েক দিনের ভ্যাপসা গরমে কাজ করতে যেতে পাচ্ছি না।
কাঁটাবাড়ী গ্রামের ডেকোরেটার ব্যবসায়ী হাফিজুল ইসলাম বলেন জানান, কয়েকটা অনুষ্ঠানের অর্ডার পেয়েছি । কিন্তু তীব্র দাপদাহ ও প্রচন্ড গরমের কারনে কারিগররা বাড়ি থেকে বের হতে পারছে না।
কাঁটাবাড়ী বাংলা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে দির্ঘ ৩০ বৎসর যাবৎ ভাজা বিক্রেতা মোঃ মাহমুদ মিয়া জানান, আমি অনেকদিন যাবৎ এখানে ব্যবসা করে আসছি। আমার জীবনে এমন গরম দেখি নাই। রুজি করে পরিবার চালানোর প্রয়োজনে এই তীব্র গরমে বাহিরে বাহির হয়েছি।
এদিকে গরমের তীব্রতা থেকে মানুষের পাশাপাশি রেহাই পাচ্ছে না গৃহপালিত পশুও। মাঠে চরানো অনেক গবাদি পশুকে তীব্র গরমে পানিতে নামতে ও গাছতলার ছায়ায় ছুিটতে দেখা গেছে। আরোও কয়েকদিন এমনি আবহাওয়া বিরাজ করবে বলে জানান, উপজেলা আবহাওয়া দপ্তরের সাথে জড়িত কর্মকর্তা। সবমিলে বর্তমানে সর্বত্রে রোদ ও ভ্যাপসা গরম বিরাজ করছে। হাট-বাজারে লোকজনের সমাগম অনেক কম লক্ষ করা যায়।

নিউজটি শেয়ার করুন







© All rights reserved © uttorersomoy.com
Design BY BinduIT.Com