বৃহস্পতিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০৭:৪৩ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম
জসিমেরও ইচ্ছে করে বাবার হাত ধরে শহীদ মিনারে আসতে (ভিডিও) হাকিমপুর নর্ব নিবাচিত মেয়রকে গণ সংর্বধনা পীরগঞ্জে মেয়র পদে আ’লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী অধ্যক্ষ খলিলের মতবিনিময় ডিমলায় শতভাগ খোলা জায়গায় পায়খানা মুক্ত এলাকা ঘোষনা লালমনিরহাটে বুরহান উদ্দিন মুজাক্কির হত্যার প্রতিবাদ ও বিচারের দাবিতে মানববন্ধন সাংবাদিক মুজাক্কির হত্যাকারীদের দৃষ্টান্তমুলক শাস্তির দাবিতে চিলমারীতে প্রতিবাদ সমাবেশ মুজিববর্ষ উপলক্ষে আটোয়ারীতে কন্যারত্মদের মার্শাল আর্ট প্রশিক্ষণ ডোমারে মানবেতর জীবন যাপন বেদে পরিবারের ফুলবাড়ীতে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে আইসক্রীম তৈরী ফুলবাড়ীতে ৩৭৪ বোতল ফেন্সিডিল ও সাড়ে ১৫ কেজি গাঁজা উদ্ধার-আটক-১




মাকে ভালো হয়ে চলাফেরা করতে বলায় ছেলেকে খুন

মাকে ভালো হয়ে চলাফেরা করতে বলায় ছেলেকে খুন

নিউজ ডেস্ক :
মুন্সিগঞ্জের গজারিয়ায় শাহ আলম নামে এক যুবককে হত্যার ঘটনায় জড়িত সন্দেহে চারজনকে আটক করে পুলিশ। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে নিহতের মা, বোন ও বোনজামাই তাকে হত্যা করার কথা স্বীকার করেছে। আটকের ৯ ঘণ্টার মধ্যে এ হত্যাকাণ্ডের রহস্য উন্মোচন করার দাবি করেছে পুলিশ।
এ ঘটনায় নিহতের বড় ভাই সাদেক হোসেন সিকদার একটি হত্যা মামলা দায়ের করলে নিহতের মা হামিদা বেগম, বোন নার্গিস আক্তার ও বোনজামাই সবুজ মিয়াকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

নিহত শাহ আলম উপজেলার টেঙ্গারচর ইউপির বৈদ্যারগাঁও গ্রামের নজরুল ইসলামের ছেলে।

নিহতের বড় ভাই সাদেক হোসেন সিকদার বলেন, ছোট ভাই শাহ আলম মাকে ভালোভাবে চলাফেরা করার পরামর্শ দিতো যা মায়ের ভালো লাগতো না। ছোট বোন নার্গিস বিয়ের পর স্বামী নিয়ে আমাদের বাড়িতে থাকতো। সম্প্রতি শাহ আলম তার স্বামী এবং তাকে শ্বশুরবাড়িতে চলে যেতে বলায় তারা তিনজন শাহ আলমের ওপর ক্ষীপ্ত ছিল। গতকাল রাতে তারা ধারালো ছুরির আঘাতে ভাইকে হত্যা করে সেটাকে আত্মহত্যা বলে চালিয়ে দেয়ার চেষ্টা করে।

গজারিয়া থানার এসআই আনিসুর রহমান বলেন, খবর পেয়ে শুক্রবার রাত সাড়ে তিনটার দিকে ঘটনাস্থলে গিয়ে নিহতের মরদেহ বাড়ির মেঝেতে দেখতে পাই।

স্বজনদের দাবি রাত পৌনে একটার দিকে নেশার টাকা জোগার করতে না পেরে নিজের মাথায় ও হাতে ধারালো ছুরি ও ব্লেড দিয়ে আঘাত করে শাহ আলম। অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে তার মৃত্যু হয়েছে বলে স্বজনদের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়। পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে।

গজারিয়া থানার ওসি মো. রইছ উদ্দিন জানান, বিষয়টি নিছক আত্মহত্যা নয় এটি প্রথম থেকে সন্দেহ হয়। সকালে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিহতের মা, বোন, বোন জামাই ও বড় ভাইকে আটক করা হয়। ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদে প্রাথমিকভাবে মা, বোন এবং বোনজামাই শাহ আলমকে হত্যার কথা স্বীকার করেছে।

নিউজটি শেয়ার করুন







© All rights reserved © uttorersomoy.com
Design BY BinduIT.Com