বুধবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২০, ০২:৩১ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম
রহস্যময় ৮ মিনিটেই শেষ জীবন আত্মহত্যার আগে অন্তঃসত্ত্বা ছাত্রী চিরকুটে লিখল ‘আমার পেটে জীবনের বাচ্চা’ কাউন্সিলর কাপ টাইগার বার ফুটবল টূর্নামেন্ট-২০২০ উপলক্ষে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত ডিলারের অনিয়মের বিরুদ্ধে অভিযোগকারী ৬ সুবিধাভোগীর মাঝে নতুন কার্ড প্রদান রংপুর মহানগরীর ১৮নং ওয়ার্ডে রাস্তা ও ড্রেন নির্মাণ কাজ শুরু ডোমারের চিলাহাটি হলদিবাড়ি রেলপথ পরিদর্শনে ভারতীয় হাই কমিশনার ইমরান তিস্তার চরাঞ্চলে সারা বাংলা ৮৮’র শীত সামগ্রী বিতরণ পীরগঞ্জে সাংবাদিকদের সাথে নবাগত ইউএনও’র মতবিনিময় দ্বিতীয় ধাপে করোনা মোকাবেলায় রংপুরে মাঠে নেমেছে ত্বোহা কনজুমার্সএন্ড ক্রেডিটস রংপুরে মাস্ক না পড়ায় ৬ হাজার টাকা জরিমানা




বীরগঞ্জে জনগণের আস্থাভাজন শিবরামপুর ইউপি চেয়ারম্যান জনক চন্দ্র অধিকারী

বীরগঞ্জে জনগণের আস্থাভাজন শিবরামপুর ইউপি চেয়ারম্যান জনক চন্দ্র অধিকারী

মো.তোফাজ্জল হোসেন, বীরগঞ্জ(দিনাজপুর) প্রতিনিধি :
দিনাজপুরের বীরগঞ্জ উপজেলা সদর থেকে প্রায় ৩০ কি:মি দূরের প্রত্যান্ত গ্রামা লে ১নং শিবরামপুর ইউনিয়ন অবস্থিত। বর্তমানে এই ইউনিয়নের পুরুষ ভোটার ৯৭৭৫ জন, মহিলা ভোটার ৯৫৭৬ সহ মোট ভোটার সংখ্যা ২৭.৭৭৯ জন। এ ব্যাপারে শিবরামপুর পরিষদের চেয়ারম্যান জনক চন্দ্র অধিকারী (৬৫) একান্ত সাক্ষাতকারে সাংবাদিকদের জানান, তিনি দীর্ঘদিন যাবত এই এলাকার আপামর জনগণের সেবায় নিয়োজিত রয়েছেন এবং আগামী দিনগুলোতেও একান্ত আস্থাভাজন সেবক হিসেবে অসহায় নিপিড়িত সকল শ্রেণী পেশার জনগণের পাশে থাকার প্রত্যয় নিয়ে একাগ্রচিত্তে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। সম্ভ্রান্ত হিন্দু সনাতন পরিবারে জন্মগ্রহণ করা জনক চন্দ্র অধিকারী ১৯৮৩ সাল থেকে ১৯৯৮ সাল পর্যন্ত একাধারে ৩ বার ইউপি সদস্য পদে দায়িত্ব পালন করেন। তিনি বহুকালযাবত ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের ত্যাগী সভাপতি হিসেবে দলীয় কার্য্যক্রম পরিচালনার পাশাপাশি এলাকার ব্যাপক উন্নয়নের কাÐারি এই জননেতা ২০১১ সালের ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে অংশগ্রহণ ও প্রতিদ্ব›িদ্বতা করে ভোটারদের ব্যালটে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়ে ২০১৬ সাল পর্যন্ত দায়িত্ব পালন করেন এবং সর্বস্তরের জনতার একান্ত সেবক হিসেবে নিয়োজিত থেকে ও এলাকার ব্যাপক উন্নয়নের কাজে বহুল প্রসংশিত হন। জনক চন্দ্র অধিকারী আক্ষেপ করে আরোও বলেন, পুনরায় ২০১৬ সালের ইউপি নির্বাচনে অংশগ্রহণ না করতে দেয়ার লক্ষ্যে ষড়যন্ত্রকারীরা তার ভূয়া মৃত্যু সনদ তৈরি করে মৃত দেখিয়ে ভোটার লিস্ট থেকে নাম কর্তন করে দলীয় মনোনয়ন এবং নৌকা প্রতীক পাওয়া থেকে বি ত করলেও পরবর্তীতে তা সংশোধন করে সতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে চেয়ারম্যান পদে ভোট যুদ্ধে অংশগ্রহণ করেন এবং ভোটারদের ভালোবাসায় সিক্ত হয়ে বিপুল ভোটের ব্যবধানে জয়যুক্ত হয়ে ২৪/৮/২০১৬ থেকে অদ্যবধি দায়িত্বরত আছেন। তিনি একজন একনিষ্ঠ সেবক হিসেবে আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে দলীয় প্রতীক নৌকা মার্কা নিয়ে ভোটে অংশগ্রহণ করতে আশাবাদী এবং পুনরায় চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলে শিবরামপুর ইউনিয়নের অসমাপ্ত উন্নয়নমূলক কাজগুলো সমাপ্ত করাসহ ডিজিটাল রোল মডেল আধুনিক ইউনিয়ন পরিষদ উপহার দেয়ার জন্য সকলের নিকট আশীর্বাদ-দোয়া ও সহযোগিতা প্রার্থনা কামনা করেন। এব্যাপারে সরেজমিনে গিয়ে শিবরাপুর ইউনিয়নের বিভিন্ন ওয়ার্ডের ভোটারদের সাথে যোগাযোগ করলে তারা জানায়,বিগত বছরগুলিতে এলাকার ব্যাপক উন্নয়নে রাস্তা-ঘাট, ব্রিজ -কালর্ভাট,শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের পাশাপাশি সুখে- দূ:খে জনগনের আস্থাভাজন, নিরিহ মিষ্টভাষী এই সেবক জনক চন্দ্র অধিকারীকে তারা আগামীতেও শিবরামপুরের জনক ও আসন্ন শিবরামপুর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান হিসেবে নির্বাচিত করতে নিজনিজ ভোটাধিকার প্রয়োগের কথা বলেন।

নিউজটি শেয়ার করুন







© All rights reserved © uttorersomoy.com
Design BY BinduIT.Com