শুক্রবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১১:৫১ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম




ছোট পরিসরে কেককাটার মধ্যদিয়ে পালিত হলো আরপিএমপি’র ২য় বর্ষ

ছোট পরিসরে কেককাটার মধ্যদিয়ে পালিত হলো আরপিএমপি’র ২য় বর্ষ

স্টাফ রিপোর্টার :
রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের দ্বিতীয় বর্ষপূর্তি আজ। ২০১৮ সালের এই দিনে আনুষ্ঠানিকভাবে যাত্রা করা আরপিএমপি সফলতার সাথে দুই বছর অতিবাহিত করে তৃতীয় বর্ষে পদার্পণ করতে যাচ্ছে।
এরই মধ্যে রংপুর মহানগরে পুলিশি সেবায় দৃশ্যমান অর্জন, বিশেষ করে ট্রাফিক ব্যবস্থাপনায় আধুনিকায়ন, বিট পুলিশিং, সরকারের ন্যায্যমূল্যের টিসিবি-ওএমএস’র পণ্য সামগ্রী উদ্ধারসহ হাসপাতাল-ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারে অভিযানসহ চাঞ্চল্যকর বহু হত্যাকাণ্ডের রহস্য উদঘাটন ব্যাপক নজর কেড়েছে। শুধু তাই নয় মানবিক পুলিশিং কার্যক্রমে জনসাধারণের আস্থা ও বিশ্বাস অর্জনে আরও একধাপ এগিয়েছে আরপিএমপি।
গতবছর প্রথম বর্ষপূর্তির অনুষ্ঠান জমকালো আয়োজনের মধ্য দিয়ে হলেও এ বছর করোনা মহামারির কারণে দ্বিতীয় বর্ষপূর্তিতে থাকছে না কোনো অনাড়ম্বর আয়োজন। তৃতীয় বর্ষে পদার্পণ উপলক্ষে সীমিত পরিসরে ঘরোয়া আয়োজন করা হয়েছে।বুধবার (১৬ সেপ্টেম্বর) দুপুরে এসব তথ্য রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার (ডিবি এন্ড মিডিয়া) উত্তম প্রসাদ পাঠক জানান। আজ সকালে সীমিত পরিসরে বর্ষপূর্তির কেককাটা হয়। পরে দুই বছরের কার্যক্রম, সাফল্য আর অর্জনের তথ্যচিত্র সম্বলিত প্রকাশনার মোড়ক উন্মোচন করেন আরপিএমপি কমিশনার মোহাম্মদ আবদুল আলীম মাহমুদ। এসময় অন্যান্য পুলিশ কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।রংপুর মেট্রোপলিটন আদালতের গেজেট হয়েছে এবং অচিরেই এর কার্যক্রম শুরু হবে বলে তিনি জানান। এদিকে মহানগর বাসীকে বর্ষপূর্তির শুভেচ্ছা জানিয়েছেন আরপিএমপি পুলিশ কমিশনার মোহাম্মদ আবদুল আলীম মাহমুদ।তিনি জানান, আরও বেশি পুলিশি তৎপরতার মাধ্যমে আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় চলমান কার্যক্রম জোরদারকরণ ও ভবিষ্যৎ কর্মপরিকল্পনায় যুগোপযোগী বাস্তবায়নে কাজ করছে রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ। আমরা সরকারের ভিশন-২০২১ এবং ভিশন-২০৪১ বাস্তবায়নের অদম্য ও প্রতিশ্রুতিশীল অংশীদার।কমিশনার আরও বলেন, আগামী বছরে প্রথম কাজ হলো পুরো নগরীর রাস্তা বিশেষ করে হাজিরহাট থেকে দমদমা পর্যন্ত ১০ কিলোমিটার সড়কে সিসি ক্যামেরা স্থাপন করা। এতে করে সড়ক দুর্ঘটনা রোধসহ ছিনতাই, ডাকাতিসহ অন্যান্য অপরাধে জড়িতদের গ্রেফতার করা সম্ভব হবে।রংপুর মেট্রোপলিটন আদালতের গেজেট হয়েছে। খুব দ্রুত সময়ের মধ্যে কার্যক্রমও শুরু হবে। এতে করে মামলার জট কমে আসবে এবং বিচারকার্য আরও সহজ হবে বলেও জানান পুলিশ কমিশনার।উল্লেখ্য, ২০১৮ সালের ১৬ সেপ্টেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন। এর আগে ২০১০ সালের ২৫ জানুয়ারি মন্ত্রী পরিষদের সভায় রংপুর বিভাগ অনুমোদন এবং একই বছর ৯ মার্চ প্রজ্ঞাপন জারির মাধ্যমে রংপুর বিভাগের কার্যক্রম শুরুর পর এখানে রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের দাবি উঠে।এরই ধারাবাহিকতায় ২০১৭ সালের ১০ ডিসেম্বর ১ হাজার ১৮৫টি পদ নিয়ে রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের কার্যক্রম শুরু হয় এবং ১৯ এপ্রিল তা গেজেট আকারে প্রকাশিত হয়। ২০১৮ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে জাতীয় সংসদে রংপুর মহানগরী পুলিশ বিল-২০১৮ পাস হয়। প্রায় ১০ লাখেরও বেশি জনসংখ্যা নিয়ে ২শ’ ৩৯ দশমিক ৭২ বর্গ কিলোমিটার আয়তনের রংপুর পুলিশ (আরপিএমপি) এর কার্যক্রম কোতয়ালি, পরশুরাম, হাজিরহাট, মাহিগঞ্জ, হারাগাছ এবং তাজহাট এই ৬টি থানা নিয়ে শুরু হয়। কেককাটা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন রংপুর রেঞ্জ ডিআইজি, বিভাগীয় কমিশনার, রসিক মেয়র, জেলা প্রশাসকসহ প্রশাসনিক উর্ধতন কর্মকর্তাবৃন্দ।

নিউজটি শেয়ার করুন







© All rights reserved © uttorersomoy.com
Design BY NewsMoon.Com