রবিবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৪:০৫ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম
প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের ভরসার কেন্দ্র বিন্দু হয়ে উঠছে পীরগঞ্জ প্রতিবন্ধী সেবা ও সাহায্য কেন্দ্র ডিজিটাল বাংলাদেশের রুপকার জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর কন্যা : ডেপুটি স্পীকার অন্নদানগর তরুন সেচ্ছাসেবী সংগঠনের পক্ষ থেকে ফ্রী ব্লাড ক্যাম্পেইন ও আলোচানা সভা বর্তমান সরকারের আমলে কৃষি পণ্যের দাম পেয়ে কৃষক লাভবান হয়েছে : রসিক মেয়র মোস্তফা সৈয়দপুরে পশু খাদ্যের চরম সংকট এক সপ্তাহেই খড়ের দাম তিনগুন বৃদ্ধি ডিমলায় আশ্বিনি বন্যায় ৬ হাজার পরিবার পানিবন্দি লালমনিরহাটে ট্রেন-ট্রাকের সংঘর্ষ, চালকসহ আহত ৮ চিলমারীতে ব্রহ্মপুত্র নদে বালু উত্তোলন বন্ধের তাগিদ দিলেন – পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী তারাগঞ্জে দুই ইউপিতে ২০ অক্টোবর উপনির্বাচন জমে উঠেছে প্রচার প্রচারনা পঞ্চগড়ে টানা বর্ষণে শীতকালীন শাকসবজির ব্যাপক ক্ষতি




স্ত্রীর দাবিতে মেয়েকে নিয়ে প্রবাসীর বাড়িতে নারী

স্ত্রীর দাবিতে মেয়েকে নিয়ে প্রবাসীর বাড়িতে নারী

smart

দিনাজপুর প্রতিনিধি :
দিনাজপুরের নবাবগঞ্জে বিদেশফেরত সোয়েব আক্তার (৩৫) নামে এক প্রবাসীর বাড়িতে গত ৪ দিন ধরে স্ত্রীর দাবি নিয়ে অবস্থান করছেন রাজিয়া সুলতানা সাথী (২৮) নামে এক গার্মেন্টসকর্মী।
শুক্রবার স্ত্রীর দাবি নিয়ে অনশন করা রাজিয়া সুলতানা ও তার ১০ বছর বয়সি কন্যা সন্তানকে দেখার জন্য ভীর করছেন গ্রামবাসী।

এদিকে রাজিয়া সুলতানা সাথী স্ত্রীর দাবি নিয়ে বাড়িতে আসায় গাঁ ঢাকা দিয়েছে কথিত প্রেমিক সোয়েব আক্তার।

ঘটনাটি ঘটেছে নবাবগঞ্জ উপজেলার জয়পুর ইউনিয়নের চামুন্ডাই গ্রামের হেলাল উদ্দিনের ছেলে মধ্যপ্রাচ্য ফেরত সোয়েব আক্তারের বাড়িতে।

স্ত্রীর দাবি নিয়ে আসা গার্মেন্টসকর্মী রাজিয়া সুলতানা সাথী একই এলাকার উত্তর সাহাবাজপুর গ্রামের আব্দুস সালামের মেয়ে।

রাজিয়া সুলতানা বলেন, তিনি গাজীপুরের একটি পোষাক ফেক্টরিতে চাকরি করেন। বিদেশে থাকা অবস্থায় সোয়েব আক্তারের সাথে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে পরিচয়, এরপর উভায়ের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। সোয়েব আক্তার গত এক বছর আগে বিদেশ থেকে ফেরত আসে। এরপর গাজীপুরে তার সাথে স্বামী-স্ত্রী পরিচয়ে বাড়িভাড়া নিয়ে বসবাস করতো।

কিন্তু হঠাৎ সোয়েব গত কয়েক মাস আগে গ্রামের বাড়িতে গিয়ে তার সাথে যোগাযোগ বন্ধ করে দিয়েছে। নতুন বিয়ে করে ঘর সংসার শুরু করে সে। এ খবর পেয়ে তিনি সোয়েব আক্তারের বাড়িতে যান স্ত্রীর মর্যাদার দাবিতে। তার সঙ্গে তার আগের স্বামীর একটি ১০ বছর বয়সী কন্যা সন্তান রয়েছে। তবে বিয়ের কাবিননামা তার নিকট নেই বলে জানিয়েছেন সাথী।

সোয়েব আক্তারের দেখা না পাওয়ায় এ বিষয়ে জানতে চাইলে তার মা আলেমা বেগম বলেন, তার ছেলে সোয়েব আক্তার গত কয়েকদিন আগে নতুন বিয়ে করেছে। এই মেয়েকে বিয়ে করেছে কিনা তা তার জানা নেই।

এদিকে এ ঘটনায় সোয়েব আক্তারের ছোট ভাই আরিফুল ইসলাম বাদী হয়ে রাজিয়া সুলতানার বিরুদ্ধে নবাবগঞ্জ থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন। অভিযোগে উলেখ করা হয়েছে, অসৎ উদ্যেশে ওই মেয়ে তাদের বাড়িতে এসে ক্ষতির চেষ্টা করছে। তাই তাকে বাড়ি থেকে অপসারণসহ ন্যায়নিচারের দাবি জানিয়েছেন তিনি।

এ বিষয়ে নবাবগঞ্জ থানার অফিসার্স ইনচার্জ ওসি অশোক কুমার চৌহান বলেন, বিষয়টি নিয়ে আফতাবগঞ্জ পুলিশ তদন্ত কেন্দ্র তদন্ত করছে। তদন্ত শেষ হলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন







© All rights reserved © uttorersomoy.com
Design BY NewsMoon.Com