মঙ্গলবার, ১৪ Jul ২০২০, ০৯:৩১ পূর্বাহ্ন




পীরগঞ্জের উন্নয়নে অনন্য ড. শিরীন শারমিন চেীধুরী

পীরগঞ্জের উন্নয়নে অনন্য ড. শিরীন শারমিন চেীধুরী

ড. শিরীন শারমিন চেীধুরী
ড. শিরীন শারমিন চেীধুরী

শাহ্ মোঃ রেজাউল ক‌রিম পীরগঞ্জ (রংপুর) প্রতিনিধি :
বাংলাদেশের ইতিহাসে প্রথম নারী স্পিকার হিসেবে শুধু নয়। নিজ নিবার্চনী এলাকা পীরগঞ্জের উন্নয়নেও অনন্য স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী। সংসদ অধিবেশনের পর বাকী দিনগুলো কাটে তাঁর নিবার্চনী এলাকা রংপুরের পীরগঞ্জ উপজেলার জনগনের সেবায়। ছুটে আসেন, ছুটে বেড়ান পীরগঞ্জের গ্রাম থেকে গ্রামে। কথা বলেন, পরামর্শ দেন, দুঃখী মানুষের চাহিদার কথা শোনেন, স্মরণে রাখতে নিজেই টুকে রাখেন নোট বুকে। এরপর চাহিদা পূরণে কাজ করেন। দৃশ্যমান উন্নয়নে বিশ্বাসী ড. শিরীন শারমিন চেীধুরী এমপি, ব্যক্তি দরিদ্র মানুষের অভাব কিংবা চাহিদা পূরণের পাশাপাশি সমষ্টিক উন্নয়নে গত প্রায় সাড়ে ৬ বছর ধরে পীরগঞ্জের উন্নয়নে নিরলসভাবে কাজ করছেন। এ কারণে এলাকার জনগণের কাছে প্রিয়মুখ হয়ে উঠেছেন তিনি। তাঁর ঘনঘন প্রানবন্ত উপস্থিতির কারণে পীরগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগে দুরন্ত গতি এসেছে। প্রথম পৌরসভা নির্বাচনে মেয়রের ঘরটি দখলে নিয়েছে আওয়ামী লীগ প্রার্থী। ফলে তৃর্ণমুল আওয়ামী লীগে অদম্য চাঙ্গাভাব এসেছে। এইসব রাজনীতিক সুফলের বাইরে স্পিকার হিসেবে নয়, পীরগঞ্জের এমপি হিসেবে উন্নয়নে অনন্য অবদান রেখেই চলেছেন ড. শিরীন শারমিন চেীধুরী এমপি। জানা গেছে, নিজ নিবার্চনী এলাকা পীরগঞ্জে অসংখ্য উন্নয়ন কাজের উদ্বোধন ও বাস্তবায়ন করেছেন ড. শিরীন শারমিন চেীধুরী এমপি। এর মধ্যে রয়েছে, পীরগঞ্জ পৌরসভা, পীরগঞ্জে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার স্থাপন, পীরগঞ্জ শাহ আব্দুর রউফ কলেজ সরকারী করণ, দিনাজপুরের ঘোড়াঘাট ও পীরগঞ্জের মধ্যে করতোয়া নদীর উপর সংযোগে নুনদহ ঘাটে সেতু স্থাপন, মেরিন একাডেমি, ড. ওয়াজেদ মিয়া টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ, পুষ্টি ইনস্টিটিউট, পুষ্টি একাডেমি, টেকনিক্যাল ট্রেনিং সেন্টার, টেকনিক্যাল স্কুল ও কলেজ ১০ শয্যা বিশিষ্ট মা ও শিশু কল্যান কেন্দ্র (খালাশপীর, মাদারগঞ্জ ও চতরা), ৯৮ কোটি টাকা বরাদ্দ ব্যয়ে দিনাজপুরের নবাবগঞ্জ থেকে পীরগঞ্জ বন্দর হয়ে গাইবান্ধা পর্যন্ত রাস্ত বর্ধিত করন কাজ, পীরগঞ্জ হাসপাতালে নতুন এ্যাম্বুলেন্স প্রদান, ফায়ার সার্ভিসের অফিস স্থাপন, পীরগঞ্জ উপজেলার গ্রামীন সড়ক পাকা করণ, পীরগঞ্জ উপজেলা শতভাগ বিদ্যুত সংযোগ, ৮৮ টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে একাডেমিক ভবন নির্মাণ, প্রাথমিক, মাধ্যমিক ও কলেজ পর্যায়ে শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাব স্থাপন হয়েছে ৪৩ টি প্রতিষ্ঠানে, পীরগঞ্জ উপজেলার প্রায় পুকুর, খাল-বিল সংস্কার, সরকারি চাকুরিতে বিভিন্ন বিভাগে উপজেলা হিসেবে সর্বোচ্চ নিয়োগ, প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ কোটায় পীরগঞ্জ এলাকার নেতা-কর্মীদের বিনা খরচে হজ্বে পাঠানো, পীরগঞ্জ সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়, পীরগঞ্জ কছিমন নেছা বালিকা বিদ্যালয় ও পীরগঞ্জ সরকারি শাহ আব্দুর রউফ কলেজে ফ্রি ওয়াই ফাই সার্ভিস প্রদান, পীরগঞ্জের প্রায় সকল মসজিদ, মন্দির, কবরস্থান ও স্মশান ঘাট উন্নয়ন, বয়স্ক, বিধবা ও প্রতিবন্ধি ভাতা’র অগ্রাধিকার প্রদান, মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স নির্মান, জয়ন্তীপুরের ঘাটে করতোয়া নদীর উপর সেতু নির্মান, প্রাকৃতিক শষ্য সংরক্ষাণাগার স্থাপন, পীরগঞ্জ মহিলা কলেজ, চতরা কলেজ এবং খালাশপীর কলেজে অর্নাস কোর্স চালু করণসহ আধুনিকায়ন একাডেমিক ভবন নির্মান, বিভিন্ন নদী-নালার উপর ত্রাণ অধিদপ্তরের আওতায় কালভার্ট নির্মাণ, আধুনিক উপজেলা পরিষদ ভবন স্থাপন, গবাদী পশু প্রজনন কেন্দ্র (বুল কাপ ষ্টেশন), নিজস্ব ও প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল থেকে সর্বোচ্চ সহযোগিতা প্রদান করা ছাড়াও অসংখ্য উন্নয়ন কাজ করছেন ড. শিরীন শারমিন চেীধুরী এমপি। উন্নয়ন নিয়ে কথা হয় পীরগঞ্জ এলাকার শিক্ষক, এনজিও প্রতিনিধি, চাকুরীজীবি, কৃষক, বগার্চাষি, দোকানদার, হোটেল বয়, শ্রমিক, রিক্সাচালক, মটর শ্রমিক, নারী শ্রমিক, ইমাম, হিন্দু ধর্মের পুরোহিত ও সুশীল সমাজের ব্যক্তিগণের সাথে। সবাই একই কন্ঠে বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও স্পিকার শিরীন শারমিন চেীধুরী এমপি পীরগঞ্জের উন্নয়নে যা করেছেন, তা অবিস্মরনীয়। পীরগঞ্জ বিজ্ঞান ও কারিগরি কলেজের অধ্যক্ষ খলিলুর রহমান বলেন- ড. শিরিন শারমিন চেীধুরী এমপির উন্নয়নের কথা আমার কাছে না শুনে জনগণের কাছে শুনুন। কারণ আমি একা নই, পরীগঞ্জের শিক্ষকসমাজ সবাই স্বীকার করে স্বাক্ষ্য দেবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, আওয়ামী লীগ সরকার ও স্পীকার শিরীন শারমিন চেীধুরী এমপি পীরগঞ্জকে উন্নয়নে বদলে দিয়েছেন।আমরা যদি সকলেই আমাদের নিজ-নিজ অবস্থান থেকে সহযোগিতা করতে পারি তাহলে পীরগঞ্জ উপজেলা হবে বাংলাদেশের উন্নয়নের রোল মডেল। স্বাধীনতার পর এমন উন্নয়ন কাজ আর হয়নি। কলেজ ছাত্রী রেবেকা সুলতানা বলেন, আমাদের এমপি স্পীকার ড. শিরিন শারমিন চেীধুরীর শুদ্ধ উচ্চারণে স্পষ্ট কথাগুলো আমার খুব ভালো লাগে। তিনি পীরগঞ্জের ব্যাপক উন্নয়ন করেছেন। বিশেষ করে গ্রামীণ সড়ক পাকা করণসহ ষ্ট্রীট লাইট স্থাপন ও বিদ্যুৎ সেবা দিয়ে। পীরগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এ্যাডঃ আজিজুর রহমান রাঙ্গা, সাধারন সম্পাদক ও পৌর মেয়র আবু ছালেহ মোঃ তাজিমুল ইসলাম শামীম এবং রংপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক শাহিদুল ইসলাম পিন্টু বলেন, আমাদের এমপি ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী পীরগঞ্জের উন্নয়নে অত্যান্ত আন্তরিক। তিনি পীরগঞ্জ উপজেলায় ব্যাপক উন্নয়ন করেছেন। স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেন, পীরগঞ্জ মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্বাচনী আসন। আমি তারই প্রতিনিধিত্ব করছি মাত্র। পীরগঞ্জের মানুষ অত্যন্ত ভালো ও সাদামাটা এবং সহজ সরল। তারাও পীরগঞ্জের উন্নয়নে আমাকে ব্যাপক সহযোগিতা করেছেন।
উলেখ্য যে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দশম জাতীয় সংসদ নিবার্চনে রংপুর-৬ আসন ও গোপালগঞ্জ-৩ আসন থেকে এমপি নির্বাচিত হন। পরে প্রধানমন্ত্রী রংপুর-৬ আসন ছেড়ে দিলে সেটি শুন্য হয়। তাঁর ছেড়ে দেয়া রংপুর-৬ পীরগঞ্জ আসনে এমপি নিবার্চিত হন স্পীকার শিরীন শারমিন চেীধুরী পরবর্তীতে তিনি পীরগঞ্জের নাগরিক হিসেবে ভোটার তালিকায় নিজের নাম অর্ন্তভুক্তি করে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিপুল ভোটের ব্যবধানে জয় লাভ করে টানা তৃতীয় বারের মত জাতীয় সংসদের স্পিকার নির্বাচিত হন।

নিউজটি শেয়ার করুন







© All rights reserved © uttorersomoy.com
Design BY NewsMoon.Com