মঙ্গলবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৬:৫০ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম
প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের অন্তর্ভুক্তি শীর্ষক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত জলঢাকায় জরাজীর্ণ ঝুঁকিপূর্ণ ভবনের বেহাল অবস্থা আটোয়ারীতে মাছের ভাসমান খাদ্য তৈরীর মেশিন বিতরণ গোবিন্দগঞ্জ ডায়াবেটিস হাসপাতালের উন্নয়নে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত অক্টোবর-নভেম্বরে বাড়তে পারে করোনা সংক্রমণ রংপুর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মোস্তফার সাথে কর্মচারী ইউনিয়নের উপদেষ্ঠা এবং এডহক কমিটির নেতৃবৃন্দের শুভেচ্ছা বিনিময় হিলিতে আইন শৃঙ্খলা বিষয়ক সভা অনুষ্ঠিত রংপুরে সিটি এজেন্ট ব্যাংকিংয়ের উদ্বোধন নীলফামারী উপজেলা আ’লীগের সভাপতি আবুজার রহমানের ওপর হামলা, সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান নিক্সন গ্রেফতার পঞ্চগড়সহ সাংবাদিকদের উপর নির্যাতনের প্রতিবাদে মানববন্ধন




উলিপুরে চরাঞ্চলে সবজি চাষে বাম্পার ফলন, কৃষকের মুখে হাসি

উলিপুরে চরাঞ্চলে সবজি চাষে বাম্পার ফলন, কৃষকের মুখে হাসি

ফয়জার রহমান রানু,উলিপুর (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি :
উলিপুরে নদ-নদীর অববাহিকায় জেগে উঠা দূর্গম চর ও দ্বীপচর সমুহে বিভিন্ন জাতের সবজি চাষের উজ্জ্বল সম্ভাবনা থাকায় এ চাষাবাদের প্রতি ঝুকে পডেছে চরাঞ্চলীয় কৃষকরা। হরেক রকমের সবজি চাষ করে ক্ষেতের উৎপাদিত ফসল বাজারজাত করে জীবিকা নির্বাহ করে আসছে তারা।
সরেজমিনে ঘুরে দেখা গেছে, উপজেলার ধরলা ও ব্র্রহ্মপুত্র নদ-নদী বেষ্টিত উলিপুর উপজেলার দু’টি ইউনিয়ন বেগমগঞ্জ ও সাহেবের আলগার প্রায় অধিকাংশ লোক কৃষির উপর নির্ভরশীল। তাই তারা সংসারে প্রতিকুল অবস্থায় থেকেও নিজ উদ্যোগে শত কষ্ঠের মাঝে সবজি চাষ করে আসছে। মঙ্গা-দারিদ্রতা, নদী ভাঙ্গন ও যোগাযোগের দুরাবস্থা তাদের অদম্য শ্রম শক্তিকে হার মানতে পারেনি। বিস্তৃর্ণ চরে যে দিকে চোখ যায় শুধু ঝিঙ্গা-চিচিঙ্গা, পটল, করলা, আলু, মরিচ আর বেগুনের ক্ষেত। এছাড়া মিষ্টি কুমডা, বাদাম, ভুট্টাক্ষেতসহ বিভিন্ন মৌসুমি সাক ও সবজির সমারহ দেখে চোখ ধাদি দেয়। কম খরচে ভালো দাম পাওয়া যায় বলে এ সব চাষে উৎসাহী হন কৃষকরা। এবারে অতিবৃষ্টি ও বন্যায় আমন ধান তেমন সুবিধে না হলেও আগাম শীতকালীন সবজি চাষে বাম্পার ফলনে কৃষকেরা সেই ক্ষতি পুষিয়ে নিতে চেষ্টা করেছেন। কৃষকদের সাথে খেটে যাওয়া অভাবী দিন মজুরদেরও সুবিধা বেড়েছে। যে সময়টায় হাতে কাজ না থাকায় সংকটে পরতে হতো, ঠিক সেই সময় এ কাজ করে সংসার দিব্বি চালিয়ে আসছে। কৃষক আব্দুল মালেক, মিজানুর, কানু মেকার, হৃদয় চন্দ্র, জমির উদ্দিন, শমসের আলী, আজগার আলী ও ইউনুস আলীর সাথে কথা হলে তারা জানান, ‘বারবার ধান উৎপাদন করে ন্যায্য মূল্য না পাওয়ায় আর্থিক ভাবে অনেক ক্ষতির শিকার হয়েছি। তাই ধান উৎপাদন কমে দিয়ে সবজি চাষ করেছি। এখন অধিকাংশ জমিতে বিভিন্ন জাতের সবজি চাষ করে কম খরচে বেশি লাভবান হচ্ছি।’ কৃষকরা আরও জানান, সবজি চাষে সাধারণত জৈব সার বেশী ব্যবহার করতে হয়। এছাড়া শীতকালীন ফসল হওয়ায় কীট-পতঙ্গের আক্রমণ তেমন একটা হয় না। ফলে কম খরচে আশাব্যঞ্জক উৎপাদন করা যায়। এসকল উৎপাদিত সবজি এলাকার বিভিন্ন হাট-বাজারসহ পার্শ্ববর্তী বাজার গুলোতে দৈনিক খুচরা ও পাইকারি দরে বিক্রি হচ্ছে। ফলে সবজি বাজারে কাচা মালের আমদানী বেড়ে যাওয়ায় দামও অনেকটা কমেছে।
উলিপুর উপজেলা কৃষি অফিসার জানান, এ বছর সবজির আবাদ ভাল হয়েছে। রোগ-বালাই না থাকায় ও অনুকুল আবহাওয়া বিরাজ করায় শাক-সবজি চাষ করে প্রত্যাশিত ফলন পেয়েছে চরাঞ্চলের চাষিরা। বাম্পার এই ফলনে সবজি চাষি পরিবারগুলোতে এখন খুশির ঝলক।

নিউজটি শেয়ার করুন







© All rights reserved © uttorersomoy.com
Design BY NewsMoon.Com